http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/05/melinda-on-a-secluded-island-after-the-separation-the-daily-rent-is-one-crore-11-lakh.jpg

বিচ্ছেদের পর নির্জন দ্বীপে মেলিন্ডা, প্রতিদিন ভাড়া এক কোটি ১১ লাখ!

সারা বিশ্ব

মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের পর নিজের মতো সময় কাটাতে চান মেলিন্ডা গেটস। বিচ্ছেদের পর নির্জন দ্বীপে মেলিন্ডা, প্রতিদিন ভাড়া এক কোটি ১১ লাখ! আর এ জন্য তিনি বেছে নিয়েছেন ক্যারিবিয়ানের গ্রানাডার অন্তর্গত একটি নির্জন দ্বীপকে। তিনি যে দ্বীপে গিয়ে উঠেছেন তার ভাড়ার অঙ্ক শুনলে চোখ কপালে ওঠার মতো। মেলিন্ডা এই দ্বীপে থাকার জন্য প্রতিদিন ভাড়া দিচ্ছেন এক লাখ ৩২ হাজার ডলার, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় দাঁড়ায় এক কোটি ১১ লাখ টাকা।

বিশ্বের প্রতিটি বিত্তবান মানুষের কাছেই এই দ্বীপটি জনপ্রিয়। গ্রানাডা বিমানবন্দরের খুব কাছে রয়েছে দ্বীপটি। লন্ডন, মিয়ামি, নিউইয়র্ক থেকে সরাসরি বিমানও রয়েছে গ্রানাডায়। এই দ্বীপটির জনপ্রিয়তার জন্যই এই বিমান পরিষেবার ব্যবস্থা। ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে সংবাদমাধ্যমের টানাটানি যে তিনি একেবারেই পছন্দ করছেন না। তাই এ মুহূর্তে পরিবারের সঙ্গে একান্তে ছুটি কাটাতে পাড়ি জমিয়েছেন ওই নির্জন দ্বীপে।

সঙ্গে নিয়ে গেছেন তার তিন সন্তানকে। রয়েছেন পরিবারের আরও কয়েকজন সদস্য। আপাতত এই দ্বীপেই থাকবেন তিনি। বিল গেটসের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ এবং তাদের সম্পত্তি বাটোয়ারার ঝামেলা মিটমাট হয়ে গেলে তবেই ফের নিজের বাড়িতে ফিরবেন বলে জানিয়েছেন মেলিন্ডা।

গ্রানাডার অন্তর্গত এই দ্বীপটির নাম ক্যালিভিগনি। দ্বীপটি মূলত স্থানীয় এক ধনকুবেরের ব্যক্তিগত সম্পত্তি। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের বিত্তবানরা ছুটি কাটাতে এই দ্বীপে আসেন। এই দ্বীপ থেকেই ক্রমাগত তার ব্যক্তিগত আইনজীবীর সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলেছেন মেলিন্ডা।

মোটা অঙ্কের ভাড়া দিয়েই কয়েক দিনের জন্য এই পুরো দ্বীপের সৌন্দর্য উপভোগ করছেন তারা। সমুদ্রে ঘেরা এই দ্বীপে যে রিসোর্টটি রয়েছে, তাতে ২০টি ঘর রয়েছে। শৌচাগার রয়েছে ১০টি। সুইমিংপুল, স্পা, নানা ধরনের খেলার জায়গা রয়েছে এই রিসোর্টে। বিনোদনের কোনো অভাব নেই এই দ্বীপে। পাশাপাশি প্রকৃতির কাছে থাকার সুযোগ তো রয়েছেই।

Tagged