http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/05/ছেলেকে-বাঁচাতে-চিকিৎসকের-পা-ধরেও-করোনার-ওষুধ-পেলেন-না-মা.jpg

ছেলেকে বাঁচাতে চিকিৎসকের পা ধরেও করোনার ওষুধ পেলেন না মা

সারা বিশ্ব

মহামারি করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভারতের রাজধানী দিল্লি, মুম্বাইসহ কয়েকটি শহরের রোপুরি ভেঙে পড়েছে স্বাস্থ্যব্যবস্থা পুরোপুরি। চরম অক্সিজেন-সংকটের পাশাপাশি  হাসপাতালগুলোতে মিলছে না প্রয়োজনীয় ওষুধ। এমন পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার( ২৯ এপ্রিল) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।ছেলেকে বাঁচাতে চিকিৎসকের পা ধরেও করোনার ওষুধ পেলেন না মা।

ভিডিওতে দেখা গেছে, করোনায় আক্রান্ত ছেলের জন্য এক মা রেমডেসিভির চেয়ে চিকিৎসকের পা জড়িয়ে ধরেছেন। ভারতীয় গণমাধ্যম জিনিউজ জানায়, ভারতের উত্তর প্রদেশের নয়ডায় ঘটনাটি ঘটেছে।

জি নিউজ জানায়, রিঙ্কি দেবী নামে এক নারীর ছেলে করোনায় আক্রান্ত। ওই নারীর ছেলে নয়ডার সেক্টর ৫১-র এক হাসপাতালে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভর্তি। জীবনদায়ী ওষুধ রেমডেসিভিরের প্রয়োজন। এদিকে হাসাপাতালের চিকিৎসকদের কাছে ছিল না সেই ওষুধ। তাকে কেউ একজন জানায়, চিফ মেডিকেল অফিসার দীপক ওহরির কার্যালয়ে পাওয়া যাবে রেমডেসিভির। শুনে রিঙ্কি দেবী দৌড়ে যান সেখানে। কিন্তু সেখানেও দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করে মেলেনি সেই ওষুধ। অবশেষে উপায় না পেয়ে ওই প্রধান চিফ মেডিকেল অফিসারের পায়ে ধরে কাতর অনুরোধ করেন, ‘আমার ছেলে মরতে বসেছে,দয়া করে আমায় ওষুধটা দেবেন’।

এসময় দীপক ওহরি তার প্রেসক্রিপশন দেখেন। কিন্তু, রেমডেসিভিরের মজুত না থাকায় তিনিও সাহায্য করতে পারেননি ওই মাকে।  ওয়াল্ডও মিটারের তথ্য অনুযায়ী ভারতে আট দিন ধরে তিন লাখের বেশি করে করোনা রোগী শনাক্ত হচ্ছেন। এছাড়া দেশটিতে এক সপ্তাহ ধরে দুই হাজারের বেশি মানুষ করোনায় মারা যাচ্ছে। বৃহস্পতিবার(২৯ এপ্রিল) সেখানে মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ৬৪৫ জনের।