http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/04/বর-করোনা-পজেটিভ-পিপিই-পরে-হাসপাতালেই-বিয়ে-সারলেন-কনে.jpg

বর করোনা পজেটিভ, পিপিই পরে হাসপাতালেই বিয়ে সারলেন কনে!

সারা বিশ্ব

বিয়ের দিনটি ঘিরে সব নারীরই অন্যরকম স্বপ্ন থাকে। যে যার সাধ্য অনুযায়ী বিশেষ এই দিনটিতে ব্যতিক্রমী সাজ-পোশাকের চেষ্টা করেন। কিন্তু বিয়ের আগে বর করোনা পজেটিভ শনাক্ত হওয়ায় পিপিই পরেই হাসপাতালে বিয়ে সারতে হয়েছে এক কনেকে। সম্প্রতি এই ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের কেরালা রাজ্যে।

ভারতের গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, কেরালার আলাপ্পুঝার কাইনাকারির বাসিন্দা ওই বরের নাম শরথ মন (২৮) আর কনের নাম পাথেক্কানারইয়াদের আভিরামি (২০)। রোববার দু’জনের বিয়ের পিঁড়িতে বসার কথা ছিল। কিন্তু বিয়ের কয়েকদিন আগেই করোনায় আক্রান্ত হন শরথ এবং তার মা। এরপরই তাদেরকে আলাপ্পুঝার মেডিকেল কলেজের কভিড ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। বর হাসপাতালে ভর্তি থাকায় বিয়ে পিছিয়ে দেওয়া ছাড়া উপায় ছিল না দুই পরিবারের।

পরবর্তীতে দুই পরিবার মিলে ঠিক করে নির্ধারিত দিনেই বিয়ে সম্পন্ন হবে। বিষয়টি জেলাশাসক এবং হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে জানিয়ে বিয়ের জন্য অনুমতি চেয়ে আবেদন জানানো হয়। অনুমতি পাওয়ার পর নির্ধারিত দিনেই হাসপাতালের কভিড ওয়ার্ডে আভিরামিকে বিয়ে করেন শরথ। তবে বিয়ের জমকালো কোনো শাড়ি বা সাজ পোশাক নয়, পিপিই পরে বিয়ের কাজটি সারেন তিনি।

ইতিমধ্যে সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে সেই বিয়ের একাধিক ছবি। সেখানে দেখা গেছে, পিপিই কিট পরে বিয়ে করতে এসেছেন আভিরামি। অন্যদিকে, শরথের পরনে নীল জামা এবং প্যান্ট দেখা গেছে। হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স এবং পরিবারের অল্প কয়েকজন সদস্যদের উপস্থিতিতে বিয়েটা সম্পন্ন হয়। ইতিমধ্যে সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে বিয়ের সেই ছবি। অনেকেই নবদম্পতিকে আশীর্বাদও জানিয়েছেন। তবে এই প্রথম নয়, এর আগে গত বছরও এই ধরনের বেশ কিছু ঘটনা সামনে এসেছিল।