http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/04/পুলিশকে-ভিখারি-বলে-পরস্পরকে-চুম্বন.jpg

পুলিশকে ভিখারি বলে পরস্পরকে চুম্বন করতে চাইলেন দিল্লির দম্পতি

সারা বিশ্ব

কোভিড সংক্রমণের বাড়বাড়ন্ত রুখতে ইতিমধ্যেই রাজধানী দিল্লিতে জারি হয়েছে সপ্তাহান্তের লকডাউন। লকডাউনের মধ্যেই রবিবার এক দম্পতি গাড়ি নিয়ে বেরিয়েছিলেন ঘুরতে। লকডাউনের বিধিভঙ্গ এবং মাস্ক পরে না থাকায় পুলিশকে ভিখারি বলে বিকাল ৪টে নাগাদ দিল্লির দরিয়াগঞ্জ এলাকায় কর্তব্যরত পুলিশ অফিসাররা ধরেছিলেন তাঁদের।

তখন ওই দম্পতি পুলিশকর্মীদের সঙ্গে যে ব্যবহার করেছেন, যে সব কথা বলেছেন তার ভিডিয়ো ভাইরাল নেটমাধ্যমে। ভিডিয়োতে ওই ব্যক্তিকে বলতে শোনা যাচ্ছে, ‘‘কেন আপনি আমাদের গাড়ি থামালেন? আমি আমার স্ত্রীর সঙ্গে যাচ্ছি।’’ পুলিশকর্মীরা তাঁদের দু’জনকে মাস্ক পরার কথা বললেও তা পরেননি তাঁরা। উল্টে গাড়ি থেকে বেরিয়ে রীতিমতো আগ্রাসী ভাবে পুলিশের সঙ্গে কথা বলেছেন ওই মহিল।

 চালান কাটার জন্য পুলিশকে ‘ভিখারি’ বলেছেন। করোনাভাইরাস বলে কিছু নেই, মানুষকে হয়রানির জন্য পুলিশ এ রকম করছে— এই অভিযোগ করতেও দেখা গিয়েছে ওই মহিলাকে। পাশাপাশি পুলিশ কর্মীদের দিকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে ওই মহিলা বলেছেন, ‘‘আমি আমার স্বামীকে চুম্বন করব। আপনি আটকাতে পারবেন?’’

পুলিশ জানিয়েছে, ওই দম্পতির নাম পঙ্কজ দত্ত এবং আভা গুপ্তা। লকডাউনে জরুরিকালীন পরিস্থিতিতে যাওয়ার জন্য কোনও অনুমতিপত্র ছিল না তাঁদের। মাস্কও পরেননি তাঁরা। যদিও দিল্লি হাইকোর্ট কিছুদিন আগে গাড়ির মধ্যেও মাস্ক পরে থাকা বাধ্যতামূলক বলে জানিয়েছিল। পুলিশের এক অফিসার জানিয়েছেন, পঙ্কজকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার তাঁকে আদালতে পেশ করা হবে। আভাকেও সোমবার গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

১৯ এপ্রিল সোমবার রাত ১০টা থেকে লকডাউন ঘোষণা করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল। আগামী সোমবার ভোর ৫টা অবধি চলবে এই লকডাউন।