http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/06/Hiding-for-fear-of-ticks-viral-video-at-the-moment.jpg

টিকার ভয়ে লুকোচুরি, মুহূর্তে ভাইরাল ভিডিও

ভাইরাল

টিকা নিয়ে মানুষের মধ্যে হাজার ভীতি। যেখানে করোনার রাশ টানতে একমাত্র ভরসা টিকা। সেই টিকা নিয়েই নানা গুজব। কেউ বলছে টিকা নিলে মৃত্যু হতে পারে। হাজার উপায়ে বোঝানোর চেষ্টা করা হলেও টিকা সংক্রান্ত ভ্রান্ত ধারণার অবলুপ্তি এখনো হয়নি। তারই প্রমাণ মিললো ভারতে যোগীর রাজ্য উত্তরপ্রদেশে। টিকার ভয়ে ড্রামের পেছনে লুকিয়ে পড়লো এক বৃদ্ধা। টিকার ভয়ে লুকোচুরি, মুহূর্তে ভাইরাল ভিডিও।

আসলে উত্তরপ্রদেশের বিজেপি বিধায়ক সরিতা ভাদৌড়িয়া ও স্বাস্থ্য দফতরের কর্তারা ডোর টু ডোর ভ্যাকসিনেশনে প্রক্রিয়া চালু করেছে। গ্রামের প্রত্যেক বাড়ি গিয়ে যোগ্য নাগরিককে টিকা দেওয়া হচ্ছে। গ্রামের সমস্ত বাড়িতে যেমন টিকা দিতে যাচ্ছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা, ঠিক তেমনি ওই মহিলার বাড়িতে টিকা দিতে গিয়েছিলেন তারা। তখনই ঘটে বিপত্তি।

স্বাস্থ্যকর্মীরা বাড়ি পৌঁছাতেই উধাও হয়ে যান অশীতিপর হর দেবী। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তাকে পাওয়া যায় অন্ধকার ঘরে একটা ড্রামের পিছনে লুকিয়ে থাকতে। তারপর তাকে বারবার অনুরোধ করা হয় বাইরে আসার জন্যে। কিন্তু টিকার ভয়ে সেখানেই বসে থাকেন। হর দেবীর দাবি টিকা নিলে জ্বর আসবে। পরে সেই ভয় কাটিয়ে তিনি বাইরে আসেন এবং টিকা নেন।মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায় সেই ভিডিও।

বিজেপি বিধায়ক সরিতা ভাদৌড়িয়া জানান, ডোর টু ডোর ভ্যাকসিনেশনে প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে এটাহ জেলার চাঁদপুর গ্রামে। সেখানে হর দেবী নামে এক বয়স্ক মহিলা টিকার ভয়ে লুকিয়ে পড়েন। অবশেষে স্বাস্থ্যকর্মীদের অনুরোধে বাইরে আসেন এবং সকলের অনুরোধে টিকা নেন। জ্বর আসার ভয়ে তিনি টিকা নিতে চাইছিলেন না তিনি। অবশেষে টিকা দেওয়া সম্ভব হয়েছে।

করোনা টিকাকরণে অনেকটাই পিছিয়ে উত্তর প্রদেশ। কেন্দ্রের কাছ থেকে ১ কোটি ৮০ লক্ষ টিকা পেয়েছে উত্তর প্রদেশ। ইতিমধ্যেই অন্যান্য রাজ্য দাবি তুলেছে সব থেকে বেশি টিকা পেয়েছে যোগিরাজ্য। কিন্তু সে রাজ্যে টিকা পেয়েছেন মাত্র ৩৫ লক্ষ মানুষ মানুষ। সেখানকার স্বাস্থ্য আধিকারিকদের দাবি মানুষের মধ্যে আরো বেশি করে সচেতনতা বাড়াতে হবে।

Tagged