http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/04/খুব-সহজেই-আইফোন-থেকে-প্রিন্ট-করতে-পারেন.jpg

খুব সহজেই আইফোন থেকে প্রিন্ট করতে পারেন

প্রযুক্তি প্রযুক্তি খবর প্রযুক্তি রিভিউ

বিভিন্ন কাজে অনেক সময় সফট কপি থাকলেও হার্ড কপির প্রয়োজন হয়। যার কারণে আমাদের প্রিন্ট করতে হয়। আর আইফোনের বিভিন্ন অ্যাপের মাধ্যমে খুব সহজেই যেকোনো কিছু প্রিন্ট করা যায়।

তবে আইফোন ব্যবহারকারীদের মধ্যে অনেকেই জানেন না আইফোন থেকে প্রিন্ট করা যায় কীভাবে। তাই খুবই সহজ ভাবে জেনে নিন আইফোন থেকে কীভাবে প্রিন্ট করা যায়-

এয়ারপ্রিন্ট

ফাইল কোথাও পাঠানো বা প্রিন্ট করার জন্য এয়ারপ্রিন্ট ব্যবহৃত হয়। এটি আলাদাভাবে ডাউনলোড বা লগ-ইন করার প্রয়োজন হয় না। তবে আইফোন থেকে প্রিন্ট করার জন্য আইফোন ও প্রিন্টার উভয়কেই একই ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের অধীনে যুক্ত করা প্রয়োজন। ওয়াই-ফাইয়ের সঙ্গে সংযুক্ত হওয়ার পর প্রিন্ট অপশনে ক্লিক করে ফাইল প্রিন্ট করা যায়।

এয়ারপ্রিন্ট বাটনটি একেক অ্যাপে একেক জায়গায় থাকে। ফটোস ও সাফারির মতো অ্যাপলের বেশিরভাগ অ্যাপে প্রথমে শেয়ার বাটনে ক্লিক করতে হবে। তারপর নিচে স্ক্রল করে এসে প্রিন্ট অপশনে ক্লিক করতে হবে। তবে এক্ষেত্রে ব্যতিক্রমধর্মী অ্যাপ হলো মেইল। যেখানে কোনো ই-মেইলের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে প্রিন্ট অপশন পাওয়া যায়।

এয়ারপ্রিন্টে যেভাবে প্রিন্ট করবেন

এয়ারপ্রিন্টে প্রিন্ট করার জন্য ব্রাদার, ক্যানন, ডেল, এপসন, ফুজি, এইচপি, কনিকা, প্যানাসোনিক, জেরক্সসহ আরো বিভিন্ন অ্যাপ রয়েছে। এসব অ্যাপের যেকোনো একটি অবশ্যই ইনস্টল করতে হবে। অ্যাপগুলোর সাহায্যে সহজেই প্রিন্টারে ফাইল পাঠানো যায়। আইফোনের এসব অ্যাপের সঙ্গে প্রিন্টার যুক্ত না থাকলে দক্ষ ম্যানুফ্যাকচারারের সঙ্গে যোগাযোগ করুন এবং এসব অ্যাপ প্রিন্টারের সঙ্গে যুক্ত করে নিন।

নন-এয়ারপ্রিন্ট অপশন

অনেকেই এয়ারপ্রিন্টের সাহায্যে প্রিন্ট করতে পারেন না। এক্ষেত্রে বিকল্প কিছু উপায় রয়েছে। এগুলোর মধ্যে অন্যতম প্রিন্টোপিয়া। তবে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, প্রিন্টোপিয়া ব্যবহারের চেয়ে এয়ারপ্রিন্ট উপযোগী অ্যাপ ব্যবহার করা ভালো। এছাড়া অ্যাপলের অ্যাপ স্টোরে বিভিন্ন প্রিন্টিং অ্যাপ রয়েছে যেগুলো ব্যবহারের জন্য পেমেন্ট করতে হয়।