মাইক্রোসফটের সার্ভার হ্যাক, সন্দেহে চীন!

প্রযুক্তি খবর

মাইক্রোসফটের কর্পোরেট ইমেইল সার্ভার সেবা এক্সচেঞ্জ হ্যাকের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের সরকার। হোয়াইট হাউসের প্রেস সচিব জেন সাকি এ ঘটনাকে ‘সক্রিয় হুমকি’ হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন।

এই হ্যাকিংয়ের ঘটনার পেছনে চীনের হাত রয়েছে বলে মাইক্রোসফট অভিযোগ করেছে। হ্যাকার লক্ষ্যবস্তুর ওপর সাইবার হামলা করার ক্ষেত্রেও মাইক্রোসফটের এই মেইল সার্ভার ব্যবহার করেছে বলে প্রমাণ পেয়েছে মাইক্রোসফট। এ ঘটনায় ২০ হাজারেরও বেশি মার্কিন প্রতিষ্ঠান আক্রান্ত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মাইক্রোসফটের কর্পোরেট ইমেইল সার্ভার সেবা এক্সচেঞ্জ হ্যাকের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের সরকার।হোয়াইট হাউসের প্রেস সচিব জেন সাকি এ ঘটনাকে ‘সক্রিয় হুমকি’ হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন।“

এই হ্যাকিংয়ের ঘটনায় ভুক্তভোগীদের সংখ্যা অনেক বেশি” উল্লেখ করে জেন সাকি বলেন, “সরকারি-বেসরকারি, শিক্ষাসহ এই মেইল সার্ভার ব্যবহারকারী সব সেক্টরের উচিত তাদেরকে মিটিয়ে দেয়া।”তার মতে, মাইক্রোসফট সার্ভারের যে নিরাপত্তা দুর্বলতা দেখা যাচ্ছে, এর ক্ষতিকর প্রভাব অনেক দূর পর্যন্ত পড়বে।

এই হ্যাকিংয়ের ঘটনার পেছনে চীনের হাত রয়েছে বলে মাইক্রোসফট অভিযোগ করেছে। হ্যাকার লক্ষ্যবস্তুর ওপর সাইবার হামলা করার ক্ষেত্রেও মাইক্রোসফটের এই মেইল সার্ভার ব্যবহার করেছে বলে প্রমাণ পেয়েছে মাইক্রোসফট। এ ঘটনায় ২০ হাজারেরও বেশি মার্কিন প্রতিষ্ঠান আক্রান্ত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিল এক বিবৃতিতে আহ্বান করেন, কোনো প্রতিষ্ঠান যদি তাদের সার্ভারে কোনো দুর্বলতা টের পায়, তাহলে যেনো দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হয়।এর আগেও বহুবার বিভিন্ন সাইবার হামলার ঘটনায় চীনকে দায়ী করে অভিযোগ তুলেছে যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু চীন বরাবরের মতোই অস্বীকার করে আসছে।

Tagged