http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/02/খালি-পেটে-পাকা-পেঁপে-খেলে-৭-উপকার.jpg

খালি পেটে পাকা পেঁপে খেলে ৭ উপকার!

লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য

পুষ্টিগুণের জন্যই সবাই পেঁপে ফলটি বেশি পছন্দ করেন। এতে আছে ভিটামিন এ, সি, কে, ম্যাগনেসিয়াম, পটাসিয়াম ও প্রোটিন। এছাড়া প্রচুর পরিমাণে ফাইবারও রয়েছে। খালি পেটে পাকা পেঁপে ক্যালোরির পরিমাণও পেঁপেতে খুবই কম। এছাড়া স্বাদেও মিষ্টি, যে কারণে সুগার রোগীদের প্রতিদিন একবাটি করে পাকা পেঁপে খেতে দেয়া হয়।

এছাড়া পেঁপের উৎসেচক যাতে সঠিকভাবে কাজ করে সেই কারণেই খালি পেটে পাকা পেঁপে খাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়। এছাড়া হজমের সমস্যা সমাধানেও পেঁপে খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। খালি পেটে পাকা পেঁপে খাওয়ার ফলে আরও অনেক সমস্যার সমাধান হয়।

চোখের সমস্যা 
এখন শিশুরাও চোখের সমস্যার কারণে চশমা পড়ে। সম্প্রতি একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে, প্রতিদিন পাকা পেঁপে খেলে এই সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া যায়। কেননা পেঁপের মধ্যে থাকা ভিটামিনই এর কারণ।

হজমে সাহায্য করে
পেঁপে খেলে মুখে রুচি হয়। এছাড়া খিদেও বাড়ায় ও পেট পরিস্কার করে। কেননা পেট পরিস্কার হলেই খিদে বাড়বে। একই সঙ্গে গ্যাস অম্বলের সমস্যা কমবে। এমনকী যাদের অর্শ্ব রোগ আছে, তাদের ক্ষেত্রেও খুব ভালো কাজ করে পেঁপে। শরীর থেকে গ্যাস টক্সিন বেরিয়ে গেলেই শরীর সুস্থ থাকবে।

হার্টের সমস্যায়
নিয়মিত পেঁপে খাওয়ার অভ্যেস করলে হার্টের সমস্যার সম্ভাবনা কিন্তু অনেকখানি কমে। পেঁপের মধ্যে থাকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এছাড়াও ভিটামিন এ, সি, ই ইত্যাদি, যা কোলেস্টেরল কমায়। যার ফলে স্ট্রোক, হার্ট অ্যাটাকের সম্ভাবনা অনেকটাই কমে। যাদের ডায়াবেটিসের সমস্যা রয়েছে এবং সেই সঙ্গে হার্টের সমস্যা তাদের প্রতিদিন একবাটি পাকা পেঁপে খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা।

ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে
পেঁপেতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, বিটা ক্যারোটিন, ফ্লেভানয়েড, লুটেইন, ক্রিপ্টোক্সান্থিন আছে। এছাড়াও আরও অনেক পুষ্টি উপাদান আছে, যেগুলো শরীরের জন্য খুবই উপকারী। ক্যারোটিন ফুসফুস ও অন্যান্য ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়।

কোলেস্টেরল কমায়
পেঁপেতে কোনও ক্যালোরি নেই। আছে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার। তাই যারা কোলেস্টেরলের সমস্যায় ভুগছেন তারা খুব ভালো ফল পাবেন যদি প্রতিদিন একবাটি করে পাকা পেঁপে খেতে পারেন। কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে থাকলেই অন্যান্য রোগের সম্ভাবনাও কমে যায়।

রূপচর্চায়
পেঁপের মধ্যে থাকে প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। আর তাই পেঁপে যদি প্রতিদিন মুখে মাখা যায় তাহলে মুখের লাবণ্য বজায় থাকে। এছাড়াও পাকা পেঁপে, মধু, টকদই একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে মাখলে রক্ত সঞ্চালন ঠিক থাকে। সেই সঙ্গে ত্বকের দাগ, ছোপ দূর হয়। ব্রণের সমস্যাও কাটে।

চুলের যত্নে
চুলের জন্যও পেঁপে খুব উপকারী। যে কারণে পেঁপে মেশানো শ্যাম্বুর প্রচলন বেশি। এছাড়াও টক দইয়ের সঙ্গে পেঁপে মিশিয়ে চুলে মাখলে গোড়া শক্ত হয়। চুলের শাইনিং ভাব বজায় থাকে। এছাড়াও মাথায় উঁকুনের সমস্যা হলে পেঁপে ভালো কাজ করে।