লিচু দিয়ে রূপচর্চা করবেন যেভাবে

স্বাস্থ্য

সময়টা এখন মৌসুমি ফলের সমারোহ। বাজারে ঢু মারলেই এখন পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ ফলই বেশি দেখা যায়। তার মধ্যে অন্যতম হলো লিচু। এই রসালো ফল শুধুই খেতেই স্বাদ নয়, এর রয়েছে আশ্চর্য গুণ যা রূপচর্চার ক্ষেত্রে অপরিহার্য। এটি প্রাকৃতিকভাবে ত্বক পরিষ্কার করে। ত্বকের ঔজ্জ্বল্যতা বাড়ায়, আবার রোদে পুড়ে যাওয়া থেকেও রক্ষা করে। আজকে জানাবো রূপচর্চার ক্ষেত্রে লিচুর আশ্চর্য কয়েকটি ব্যবহার সম্পর্কে।

১. অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট হিসেবে কাজ করে লিচু কারণ এতে রয়েছে ফাইটোকেমিক্যালস। চোখে ছানি পড়া আটকাতেও কাজ করে এই ফাইটোকেমিক্যালস।

২. লিচুর রস অনেক কার্যকরী ত্বকের কালচে দাগ-ছোপ দূর করতে। কয়েকেটা লিচু ব্লেন্ড করে মুখে মেখে ১৫-২০ অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন। মুখের কালো দাগ দূর করতে সপ্তাহে অন্তত ২ দিন করতে পারেন।

৩. রোদে পোড়া ত্বকের ট্যান দূর করতে লিচুর রস অত্যন্ত কার্যকরী। ভিটামিন-ই ক্যাপসুলের সাথে ৪-৫টা লিচু ব্লেন্ড করে মিশিয়ে মুখে ও হাতে পায়ে মাখুন। ৩০ মিনিট রেখে ঠান্ডা পানি দিয়ে ভাল করে ধুয়ে ফেলুন। প্রতি সপ্তাহে ২-৩ দিন ব্যবহার করলে রোদে পোড়া ভাব দূর হবে। রোদে পোড়া ভাব দূর করবে।

৪. লিচুর রসের জুড়ি নেই ত্বকের বলিরেখা দূর করতেও। লিচুর রস মুখে মেখে ১০-১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে নিন। দেখবেন খুব দ্রুত ফল মিলবে।

Tagged