http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/05/the-father-explained-the-reason-for-Nobles-mental-hospita.jpg

নোবেলের মানসিক হাসপাতালে যাওয়ার কারণ জানালেন বাবা

বিনোদন

সংগীতশিল্পী মাঈদুল ইসলাম নোবেল আলোচনায় থাকতে পছন্দ করেন। তার সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ড তোলপাড় সৃষ্টি করেছে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে। সেই বিতর্ক শেষ না হতেই পাবনার মানসিক হাসপাতালে গেছেন তরুণ এ শিল্পী। পাবনার মানসিক হাসপাতালে নোবেল কেন গেছেন? নোবেলের মানসিক হাসপাতালে যাওয়ার কারণ জানালেন বাবা।

তার দাবি, চিকিৎসার জন্য নয়; মূলত বেড়াতে বের হয়ে সেখানে গিয়েছিলেন তার ছেলে নোবেল। গত কয়েক দিন ধরে ফেসবুক পেজে আপত্তিকর বেশ কিছু স্ট্যাটাস দিয়ে দেশজুড়ে সমালোচিত হন উঠতি শিল্পী মাঈদুল ইসলাম নোবেল।

এ কণ্ঠশিল্পী মানসিকভাবে বিপর্যস্ত জানিয়ে তাকে সুচিকিৎসার পরামর্শ দেন নেটিজেনদের একাংশ। এমন পরিস্থিতিতেই বৃহস্পতিবার দেখা গেল, সস্ত্রীক পাবনার মানসিক হাসপাতালে গেছেন নোবেল। সেখানে বেশ কয়েকজন মানসিক রোগীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন তিনি। তাদের জাতীয় সংগীত গেয়ে শোনাচ্ছেন। গ্রিলের ওপারের বাসিন্দারাও নোবেলে সঙ্গে সুর মেলাচ্ছেন।

বৃহস্পতিবার বেলা ৩টার দিকে নোবেল নিজেই তার ‘নোবেলম্যান’ পেজে একটি ভিডিও পোস্ট করেন।  এ ভিডিও দেখে নেটিজেনদের ধারণা— পুলিশের পরামর্শে মানসিক চিকিৎসার জন্য পাবনার ওই ঐতিহ্যবাহী হাসপাতালে গেছেন নোবেল।

বিষয়টি পরিষ্কার হতে নোবেলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তাকে ফোনে পাওয়া যাচ্ছিল না। অবশেষে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় নোবেলের বাবা মোজাফফর হোসেন নান্নুর সঙ্গে যোগাযোগ হয় গণমাধ্যমের।

তিনি বলেন, এ বিষয়ে সাংবাদিকরা আমাকে ফোন করে বিব্রত ও বিরক্ত করছেন।  আমি স্পষ্ট করেই বলছি- চিকিৎসা বা ভর্তি হওয়ার জন্য নয়, নোবেল বেড়াতে গেছে পাবনা। মানসিক হাসপাতালটাও ভিজিট করেছে ও।  ওখান থেকে যশোর, কুষ্টিয়া, গোপালগঞ্জ হয়ে ঢাকায় ফিরবে। সঙ্গে ওর স্ত্রীও আছে। এর আগে গত বুধবার দিনভর পুলিশের সাইবার ইউনিটের মুখোমুখি হয়েছিলেন নোবেল।

ফেসবুকে অনবরত উল্টোপাল্টা ও কুরুচিপূর্ণ স্ট্যাটাস দেওয়ার জন্য তাকে ডেকেছিল ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের সাইবার ক্রাইম ডিভিশন। সেখানে সব দায় স্বীকার করে একটি পোস্ট দিয়ে সবার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন নোবেল।

নোবেল তার ফেসবুক পেজে পোস্ট দেন, পুলিশের সঙ্গে সাক্ষাতের পর তার মানসিক চিকিৎসা চলছে।  ধারণা করা হচ্ছে— সেই সূত্রে বৃহস্পতিবার সকাল নাগাদ নিজ বাইকে চেপে সস্ত্রীক নোবেল ছুটেছেন পাবনার মানসিক হাসপাতালে।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালে ভারতের জিবাংলা টেলিভিশনের রিয়েলিটি শো ‘সা রে গা মা পা’-তে অংশ নিয়ে আলোচনায় আসেন মাঈনুল ইসলাম নোবেল। কিন্তু গানে মনোযোগী হওয়ার চেয়ে বিতর্কের জন্ম দিতেই ভালো বেসেছেন তিনি।

প্রথম থেকেই একের পর এক বিতর্ক সৃষ্টি করে নেটদুনিয়ায় সমালোচিত হন নোবেল।

Tagged