http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/05/Noble-page-on-James-ugly-status-social-media-brawl.jpg

জেমসকে নিয়ে নোবেলের পেজে ‘কুরুচিপূর্ণ’ স্ট্যাটাস, সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড়

বিনোদন

বিতর্ক, গালাগালই যেন পছন্দ ভারতের রিয়েলি টিভি শো ‘সারেগামাপা’ থেকে জনপ্রিয়তা পাওয়া বাংলাদেশি শিল্পী মাঈনুল ইসলাম নোবেল। নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজকে বিতর্কে মজে থাকার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছেন তিনি।

সম্প্রতি এক বৃদ্ধকে বাঁচাতে গিয়ে দুর্ঘটনায় পড়ে মাথায় ও মুখে ৩০ সেলাই পড়েছে তার এমন ঘটনা লেখেন ফেসবুকে। পরে বৃদ্ধকে বাঁচানোর তার ওই কাহিনিটি বানোয়াট দাবি করেন অনেকে। এ নিয়ে ফেসবুকে চলে তুমুল বির্তক। সেই বিতর্কের অবসানের পর কিছুদিন চুপ থাকলেও ফের নতুন বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন নোবেল। অনেকের মতে, ‘পাগল’ হয়ে গেছেন এই শিল্পী।

বৃহস্পতিবার নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে ১ ঘণ্টায় ১১টি স্ট্যাটাস দিয়েছেন নোবেল। যার বেশিরভাগই বাংলা ব্যান্ডের নগরবাউল খ্যাত জেমসকে নিয়ে। সবগুলো স্ট্যাটাসই আপত্তিকর ও কুরুচিপূর্ণ। যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড় চলছে। এর একটিতে জেমসকে ‘ওপেন চ্যালেঞ্জ’ ছুড়েছেন নোবেল। লিখেছেন,  ‘জেমসকে ওপেন CHALLENGE!একই গান জেমস গাবে আমিও গাব!’

আরেকটি স্ট্যাটাসে নোবেল লেখেন, ‘ওই জেমস!গান গাবা এক স্টেজে?তোমারে ১০০০ মিউজিশিয়ান দেব। আর আমি একা একটা মাইক্রোফোন! অন্য আরেকটি স্ট্যাটাসে জেমসকে তথাকথিত কিংবদন্তি বলে কটাক্ষ করেন নোবেল। নোবেলের এমন ধৃষ্টতা দেখে বিস্মিত নেটিজেন। সংগীতপ্রেমীরা হতবিহল। অনেকের মতে, এই তরুণ শিল্পী মানসিক সমস্যায় ভুগছেন।

তবে কেউ কেউ বিষয়টি মানতে পারছেন না। তাদের বিশ্বাস, নোবেলের ফেসবুক পেজ হ্যাক হয়েছে। এরইমধ্যে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে যাচ্ছেন নেটিজেনরা। জেমসভক্তদের কেউ কেউ তার সুস্থতা কামনা করছেন। অনেকেই নোবেলকে বয়কটের দাবি জানাচ্ছেন।

মোহাম্মদ হোসেন নামের একজন লিখেছেন, ‘জেমস মানে গুরু, জেমস মানে দরদ ভরা কন্ঠের ব্যান্ড গান, জেমস মানে গভীর এক অসাধারণ প্রতিভা। জেমস যেখানে মহাসাগর সেখানে তোমাকে পুকুরের সাথে তুলনা করা যেতে পারে। সাখাওয়াত হোসেন লিখেছেন, ১টা নোবেল যেকোন সময়ে তৈরি করা যায়। একটা জেমস তৈরি করা অসম্ভব।’

সাদনান শরীফ লিখেছেন, নোবেলের উদ্দেশ্য তিনি সবসময় শিরোনাম হয়ে থাকবেন।হোক সেটা পজিটিভ কিংবা নেগেটিভ যেভাবে হোক না কেনো, তার মোটকথা শিরোনামে থাকতেই হবে। গাজি মোহাম্মদউল্লাহ ফরহাদ লিখেছেন, ‘মানবিক দৃষ্টি আকর্ষণ ,ভাইটিকে (নোবেল) কেউ টাকা দিয়ে সাহায্য করে উন্নত মানসিক হসপিটালে ভর্তি করার সুযোগ করে দিন।

                 ফ্রি কুইজে অংশগ্রহণ করে জিতে নিন ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত পুরস্কার

জেমসকে নিয়ে আপত্তিজনক নোবেলের সব স্ট্যাটাসে এমন সব নেতিবাচক কমেন্টে সয়লাব হয়ে গেছে। শিল্পী নোবেলের পেজ থেকে কেন এমন সব পোস্ট দেওয়া হচ্ছে? নাকি নোবেলের পেজটি হ্যাক হয়েছে সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি। নোবেলের পক্ষ থেকেও এ বিষয়ে বক্তব্য আসেনি।

Tagged