http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/04/লকডাউনের-আগের-রাতে-দ্বিতীয়-বিয়ে-করলেন-পুতুল.jpg

লকডাউনের আগের রাতে দ্বিতীয় বিয়ে করলেন পুতুল

বিনোদন

লকডাউনের আগের রাতেহুট করেই বিয়ে করলেন তরুণ প্রজন্মের সংগীতশিল্পী সাজিয়া সুলতানা পুতুল। পাত্র পুতুলের দীর্ঘ দিনের গানবন্ধু সৈয়দ রেজা আলী। অস্ট্রেলিয়াতে তার বেড়ে ওঠা। সেখানকার ব্যাংকার তিনি। পাশাপাশি একজন মিউজিশিয়ানও। তার মিউজিকে পুতুল বেশ কয়েকটি গানও গেয়েছেন। বিয়েতে দুই পরিবারে সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

দেশজুড়ে লকডাউনের পূর্বক্ষণে হুট করেই তাদের বিয়ে হয়ে গেলো বলে মন্তব্য করেন পতুল। এতোটা আকস্মিকভাবে বিয়ের মতো একটা ঘটনার জন্য একেবারেই প্রস্তুত ছিলেন না এ গায়িকা। ফেসবুকে স্ট্যাটাসের মাধ্যমে বিষয়টি জানালেন পুতুল নিজেই। পুতুল বলেন, আমাদের গানের বহু বছরের বন্ধুত্বকে নতুন একটা মাত্রা দেয়ার কথা ভাবেন রেজার বাবা মা। তাঁদের কাছ থেকে বরাবরই সীমাহীন স্নেহ ভালোবাসা পেয়েছি।

আমাদের দুজনের পরিবারের বড়দের ইচ্ছা অনুসারে একেবারেই ঘরোয়াভাবে শুধুমাত্র পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে ঘন্টাখানেকের প্রস্তুতিতে বিয়ে! দেশজুড়ে লকডাউনের পূর্বক্ষণে এতোটা আকস্মিকভাবে বিয়ের মতো একটা ঘটনার জন্য একেবারেই প্রস্তুত ছিলাম না কেউ।

বিয়ের পর নিজেই নিজেকে শুভ কামনা জানিয়ে পুতুল লিখেন, শুভকামনা নিজেকে এবং আমার সঙ্গী রেজাকে, বিবাহিত জীবনের দুর্গম পথ পাড়ি দেয়ার মতো বলিষ্ঠ পথিক যেনো হয়ে উঠতে পারি। সুরের বন্ধন আত্মার বন্ধনে গিয়েও যেনো একইরকম সুরেলা থাকে, যেনো ছন্দ না কাটে। যেনো সুর তাল লয়ের পরিমিতিতে অপূর্ব সঙ্গীত সৃষ্টি করতে পারি সংসার নামের এই রহস্য-দুর্ভেদ্য জায়গাটায়। বন্ধু হিসেবে যেভাবে চিনতাম তাকে, সঙ্গী হিসেবেও সেই চেনাটাই যেনো সত্যি হয় ।

পতুলের এটি দ্বিতীয় বিয়ে। এর আগে বিয়ের দুই বছরের মাথায় বিচ্ছেদের খবর নিজেই জানান পতুল। ২০১৯ সালের ১৫ মার্চ বাগদান হয়েছিল পুতুলের। এরপর ২০ মার্চ বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা হয় তাদের। সাবেক স্বামী কানাডাপ্রবাসী আলোকচিত্রী ইসলাম নুরুল। ওয়েডিং ফটোগ্রাফির একটি এজেন্সি ছিল বলে বিয়ের সময় জানা যায়।