http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/03/পিস্তল-হাতে-ছবি-ফেসবুকে-দিয়ে-সমালোচনার-মুখে-এমপি.jpg

পিস্তল হাতে ছবি ফেসবুকে দিয়ে সমালোচনার মুখে এমপি

সারা বাংলা

বগুড়া-৭ (গাবতলী-শাজাহানপুর) আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য রেজাউল করিম বাবলু ওরফে শওকত আলী গোলবাগী বাবলু দামি পিস্তল হাতে ফেসবুকে ছবি দিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি করেছিলেন। তাকে এবার দুদক বগুড়া সমন্বিত কার্যালয়ে তলব করা হয়েছে।

রোববার বিকালে তার কাছে পাঠানো নোটিশে আগামী ১৪ মার্চ সকাল ১০টার দিকে সশরীরে হাজির হতে বলা হয়েছে।

দুদকের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এদিকে সংসদ সদস্য বাবলু সব ফোন বন্ধ রাখায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

বিভিন্ন সূত্র জানায়, ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়া-৭ আসনে বিএনপি প্রার্থী মোরশেদ মিল্টন নির্বাচন করতে ব্যর্থ হন। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ আসনটি শরিক জাতীয় পার্টিকে ছেড়ে দেয়। মরহুম আওয়ামী লীগ নেতা আজম খানের স্ত্রী ফেরদৌস আরা খান স্বতন্ত্র প্রার্থী হলে দলীয় নেতাকর্মীরা তাকে সমর্থন দেন। এতে জাপা প্রার্থীর অবস্থান নড়বড়ে হয়ে যায়।

এছাড়া রেজাউল করিম বাবলু ওরফে শওকত আলী গোলবাগী বাবলু ট্রাক মার্কা প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী ছিলেন। বিএনপি ও জামায়াতের ভোটাররা সমর্থন দেওয়ায় জাপা প্রার্থী আলতাব আলীকে বিপুল ভোটে পরাজিত করে বাবলু এমপি হন।

এদিকে এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর বাবলুর বিরুদ্ধে হলফনামায় মামলার তথ্য গোপনের অভিযোগ ওঠে। এ নিয়ে পত্রিকায় লেখালেখি হলেও কেউ তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়নি। নির্বাচনী হলফনামায় তিনি বার্ষিক আয় পাঁচ হাজার টাকা দেখান। পুরাতন মোটরসাইকেলে চলাফেরা করতেন। দুই মাসের মাথায় তিনি ৩৪ লাখ টাকা দিয়ে গাড়ি কেনেন।

তখন এমপি বাবলু দাবি করেছিলেন, গাড়িটি তার বন্ধুরা উপহার দিয়েছেন। তবে এলাকায় প্রচারণা ছিল, স্থানীয় অবৈধভাবে গড়ে তোলা ইটভাটার মালিকরা ভাটা রক্ষায় এমপিকে গাড়িটি কিনে দিতে বাধ্য হন।

কয়েকজন অসহায় ব্যক্তিকে চাকরি দেওয়ার নামে তিনি মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেন বলে অভিযোগ ওঠে। এছাড়া তিনি গত ২০২০ সালে অক্টোবরে দামি পিস্তল হাতে ফেসবুকে ছবি দিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি করেন।

দুদক বগুড়া সমন্বিত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম জানান, বিভিন্ন সূত্রে ও পত্রিকার রিপোর্টে বগুড়া-৭ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য রেজাউল করিম বাবলু ওরফে শওকত আলী গোলবাগী বাবলু এবং তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে জ্ঞাত-আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ পাওয়া যায়।

এর পরিপ্রেক্ষিতে প্রাথমিক তদন্ত করলে অভিযোগের সত্যতা মেলে। তাই সংসদ সদস্য বাবলুকে আগামী ১৪ মার্চ সকাল ১০টায় বগুড়ার নিশিন্দারা উপশহরের দুদকের বগুড়া কার্যালয়ে তলব করা হয়েছে।

দুদক কর্মকর্তা আরও জানান, ওই দিন এমপি বাবলু হাজির হলে তার ও পরিবারের সদস্যদের সম্পদের হিসাব চাওয়া হবে।

Tagged