http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/02/চালভাজা-খাওয়া-নিয়ে-মায়ের-ওপর-অভিমান-করে-প্রাণ-দিল-শিশু.jpg

চালভাজা খাওয়া নিয়ে মায়ের ওপর অভিমান করে প্রাণ দিল শিশু

সারা বাংলা

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলায় চালভাজা খাওয়া নিয়ে  মায়ের ওপর অভিমান করে এক শিশু আত্মহত্যা করেছে। নিহত শিশুর নাম রাব্বি হোসেন (১২)।

সোমবার রাত ১১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থেকে তার মৃত্যু হয়।

নিহত রাব্বি আলমডাঙ্গা উপজেলার রুইথনপুর গ্রামের কৃষক মিজানুর রহমানের ছেলে। চালভাজা খাওয়া কেন্দ্র করে শিশু রাব্বি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন।

এলাকাসূত্রে জানা গেছে, সোমবার বেলা সাড়ে ৫টার দিকে বাড়ির সামনের একটি বাগানে খেলা করছিল রাব্বি। এ সময় বাড়ি ফিরে মায়ের কাছে চালভাজা খেতে চায়।

ঘরে কাজ থাকায় চাল ভাজতে অস্বীকৃতি জানান তার মা। রাব্বি জিদ ধরলে মা বকাঝকা করেন। এতে মায়ের ওপর অভিমান করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় রাব্বি।

নিহত রাব্বির বাবা মিজানুর রহমান জানান, চালভাজা খাওয়া নিয়ে  সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরতে না দেখে তাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করি। পরে বাগানের একটি গাছে তাকে গলায় গামছা পেঁচানো অবস্থায় ঝুলতে দেখা যায়।

সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত ডা. জান্নাতুল ফেরদৌস রাব্বিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। সেখানে নেওয়ার প্রস্তুতির সময় রাত ১১টার দিকে সে মারা যায়।

এ বিষয়ে আলমডাঙ্গা থানার ওসি আলমগীর কবীর জানান, আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে নিহত শিশুর মরদেহ ময়নাতদন্ত ছাড়াই পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।