থানায় চাঁদাবাজি মামলার আসামির জন্মদিন উদযাপন!

সারা বাংলা

দুই বছর আগে চাঁদাবাজির মামলায় গ্রেপ্তার এক যুবক কেক কেটে ঘটা করে জন্মদিন উদযাপন করলেন সাভার মডেল থানায়। তিনি নিজেকে পরিচয় দেন ছাত্রলীগ নেতা হিসেবে, যদিও সংগঠনে তার কোনো পদ নেই।

তার নাম রিপন সরদার। যদিও তার ফেসবুক আইডি রায়হান ইসলাম নামে। এই আইডিতে জন্মদিন উদযাপনের ছবিও পোস্ট করা হয়। বিতর্ক তৈরি হলে তা অপসারণ করে ফেলা হয়।

গতকাল রোববার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে রায়হান ইসলাম নামে একটি ফেসবুক আইডিতে কেক কেটে জন্মদিন উদযাপনের কয়েকটি ছবি পোস্ট করা হয়। এতে দেখা যায়, থানার ইন্সপেক্টর পদমর্যাদার দুই শীর্ষ কর্মকর্তা আগত অতিথিকে জানিয়েছেন অভ্যর্থনা।

বিশেষ ব্যক্তি হিসেবেই কদর পেয়েছেন রায়হান ইসলাম (ফেসবুক নাম) নামে এক যুবক। দুই কর্মকর্তার মধ্যমণি রায়হান তাদের হাতে হাত রেখে কেটেছেন নিজের জন্মদিনের কেক। পরে রায়হানের ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হয়েছেন সাভার মডেল থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম। আরেক ইন্সপেক্টর (অপারেশন) আল আমিন তালুকদার রায়হানকে কেক মুখে তুলে খাইয়েছেন রায়হান।

কখনও ছাত্রলীগ নেতা, আবার কখনও কর্মী পরিচয় দেওয়া রিপন মূলত ফুটপাতে চাঁদাবাজি মামলার আসামি। কথোপকথনে রিপন এক স্থানীয় সাংবাদিককে বলেন, ২০১৯ সালে চাঁদাবাজির মামলায় সাভার বাজারস্ট্যান্ড এলাকা থেকে তিনি গ্রেপ্তার হন। এরপর তিন দিন জেলও খেটেছেন। যদিও মামলাটা শত্রুতামূলক বলে দাবি করেন রিপন।

থানায় রিপনের জন্মদিনের কেক কাটা ও সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ায় সমালোচনার মুখে পড়েছে সাভার মডেল থানা পুলিশ। পরে অবশ্য রায়হান ইসলামের  আইডি থেকে পোস্টগুলো মুছে ফেলা হয়।

Tagged