http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/06/The-High-Court-has-ordered-to-release-the-jailed-Minu-on-behalf-of-others.jpg

অন্যের হয়ে জেলখাটা মিনুকে মুক্তি দিতে হাইকোর্টের নির্দেশ

সারা বাংলা

ছেলে মেয়ের ভরণ পোষণ আর তাদের সুরক্ষার কথা চিন্তা করে চট্টগ্রামের একটি হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন কারাদ-প্রাপ্ত আসামি কুলসুম আক্তার ওরফে কুলসুমির পরিবর্তে জেল খাটা নিরপরাধ মিনুকে মুক্তি দিতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। পাশাপাশি মূল আসামি কুলসুমকে দ্রুত গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। অন্যের হয়ে জেলখাটা মিনুকে মুক্তি দিতে হাইকোর্টের নির্দেশ।

সোমবার( ৭ জুন) হাইকোর্টের বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি মহিউদ্দিন শামীমের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ এ আদেশ দেন। একইসঙ্গে কুলসুমের স্বাক্ষর জালিয়াতি করে যারা হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেছেন সেই আইনজীবী ও তদবিরকারীদের তলব করেছেন আদালত। আগামী ২৮শে জুন হাইকোর্টে হাজির হয়ে এ বিষয়ে উপযুক্ত ব্যাখ্যাসহ জবাব দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

কোনো নিরপরাধ ব্যক্তির জেলখাটা দুর্ভাগ্যজনক বলে মন্তব্য করেছেন হাইকোর্ট। আদালত বলেন, অর্থের বিনিময়ে বা যেকোনো কৌশলে মূল আসামি নিজেকে বাঁচিয়ে নিরপরাধ ব্যক্তিকে জেলে রাখার ঘটনা দুর্ভাগ্যজনক।আদালতে মিনুর পক্ষে শুনানি করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. শিশির মনির। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. মো. বশির উল্লাহ।

প্রসঙ্গত, হত্যা মামলায় আদালত যাবজ্জীবনসহ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ড দেন কুলসুম আক্তার কুলসুমীকে। কিন্তু আদালতে আত্মসমর্পণ করে জেল খাটেন মিনু নামে এক নারী। নামের মিল না থাকার পরও কুলসুম আক্তার কুলসুমীর বদলে মিনু চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে থাকেন দুই বছর নয় মাস ১০ দিন ধরে। কোনো কিছুর মিল না থাকায় একজনের বদলে আরেকজন জেল খাটার বিষয়টি আদালতের নজরে আনেন চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মো. শফিকুল ইসলাম খান।

Tagged