আসলে সে একজন পুরুষ, ২৫ বছর পর জানলেন সদ্য বিবাহিত নারী!

সারা বাংলা

নিজেকে ২৫ ধরে নারী হিসেবে জানলেও, আদতে তিনি একজন পুরুষ। সম্প্রতি বিয়ে করা এক চীনা নারীর সাথে এমনই ঘটনা ঘটেছে। জানা গেছে, অসুস্থ হওয়ায় একটি শারীরিক পরীক্ষা করা হয়েছিল তার। সেই পরীক্ষার রিপোর্টে জানা যায়, তার শরীরে রয়েছে পুরুষের জিন। অর্থাৎ তিনি জন্মেছেন একজন পুরুষ হিসেবেই। যদিও চিকিৎসকেরা তার শরীরে কোনও পুরুষালি প্রত্যঙ্গের খোঁজ পাননি।

পিংপিং নামের ওই নারীর বাড়ি পূর্ব চিনের জেজিয়াং প্রদেশে। গত বছরই তিনি একজন পুরুষকে বিয়ে করে সংসারী হয়েছেন। পিংপিং চিকিৎসকদের জানিয়েছিলেন, চেষ্টা করেও অন্তঃসত্ত্বা হতে পারেননি তিনি। পরীক্ষা করে জানতে পারেন, নারী শরীরের প্রজনন প্রত্যঙ্গগুলোই নেই তার। মূলত তিনি পুরুষ হয়েই জন্মগ্রহণ করেছেন।

আপাতত পিংপিংয়ের এই শারীরিক অবস্থাকে রোগ বলেই চিহ্নিত করেছেন চিকিৎসকরা। তবে ভয় না পেয়ে ভবিষ্যত্ জীবনে এগিয়ে যেতে বলা হয়েছে তাকে। ২৫ বছর ধরে নিজেকে নারী ভাবা পিংপিং যে জিনগত ভাবে আসলে পুরুষ তা বুঝিয়ে দিয়েছেন চিকিৎসকেরা। নতুন জীবনে প্রবেশের আগে পিংপিংকে মানসিক চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলে নেওয়ার পরামর্শও দিয়েছেন তারা।

Tagged