জ্বী, জন্মগত ভাবে আমি বেয়াদবঃ নোবেল

সারা বাংলা

বিতর্কিত এবং সমালোচিত গায়ক হিসেবে সম্প্রতি আলোচনায় এসেছেন মাইনুল আহসান নোবেল। পরিচিতি পেয়েছেন জি বাংলার সংগীত রিয়েলিটি শো থেকে। পরিচিতি পাওয়ার পর একাধিক বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের সঙ্গে নিজেকে জড়িত করেছেন। এবার নিজেই নিজেকে বেয়াদব হিসেবে অখ্যায়িত করেছেন তিনি। বলেছেন, আমি জন্মগতভাবেই বেয়াদব।

সোমবার (১৭ মে) মধ্যরাতে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে তিনি এ মন্তব্য করেন।  পোস্টে তিনি লিখেন, আমি গায়ক! গান গেয়ে জীবিকা নির্বাহ করি। নকল ভদ্রতা বিক্রি করে নয়। জি! জন্মগতভাবে আমি বেয়াদব। নোবেলের ফেসবুকে স্ট্যটাসটি হুহহু তুলে ধরা হল- আমি গায়ক! গান গেয়ে জীবিকা নির্বাহ করি। নকল ভদ্রতা বিক্রি করে নয়। জ্বী! জন্মগত ভাবে আমি বেয়াদব!

এর আগে রবিবার (১৬ মে) রাত সাড়ে ৯টার দিকে আরেকটি স্ট্যাটাসে গান ছেড়ে দেওয়ার মতো এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য করায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের দেখে নেওয়ার হুমকিও দিয়েছেন তিনি। প্রসঙ্গত, ফেসবুক পাতায় কখনও নরেন্দ্র মোদি, জনপ্রিয় গীতিকার-সুরকার ইথুন বাবুকে নিয়ে ফেসবুকে আপত্তিকর স্ট্যাটাস ছাড়াও অন্যের সুর ও সংগীত করা গান নিজের নামে চালিয়ে দেয়ার অভিযোগ ওঠে তার উপর।

সবশেষ ‘নগর বাউল’ জেমস, -কে নিয়ে আপত্তিকর স্ট্যাটাস দিয়ে বেশ সমালোচনার মুখে পড়েছেন তিনি। যদিও পরে বলেছেন তার ফেসবুক পেইজ হ্যাকারদের কবলে পড়েছিল। এর জের ধরে সমালোচনার মুখে ‘মেহেরবান’ নামে একটি অ্যালবাম প্রকাশের চুক্তি থেকে সরে যায় ঐতিহ্যবাহী সংগীত প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সাউন্ডেটেক। প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে একাধিক গানের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন নোবেল। এছাড়া, অ্যালবামটির গানের সুর ও সংগীতায়োজনের মালিকানা নিয়ে সংগীত পরিচালক আহমেদ হুমায়ূনের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়েছেন নোবেল।

Tagged