http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/05/Strict-lockdown-again-the-police-are-getting-judicial-power.jpg

আবার কঠোর লকডাউন, বিচারিক ক্ষমতা পাচ্ছে পুলিশ

সারা বাংলা

১৬ মে পর আরেক দফা বাড়বে কঠোর বিধিনিষেধ। এছাড়া মাস্ক পড়া বাধ্যতামূলক করতে পুলিশকে বিচারিক ক্ষমতা দেয়া হবে। বৃহস্পতিবার (১৩ মে) জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন গণমাধ্যমকে এ কথা জানিয়েছেন।

এর আগে মঙ্গলবার (১১ মে) বিকেলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, দেশে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে। এটা ঝুঁকির মধ্যে ফেলতে পারে। সংক্রমণ এড়াতে আরও কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। এর আগে ১১ মে বিকেলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে দেশে। এটা ঝুঁকির মধ্যে ফেলতে পারে। সংক্রমণ এড়াতে আরও কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে।

এর আগে করোনার সংক্রমণ রোধে সারাদেশে গেল ৫ এপ্রিল থেকে শুরু হয় সাত দিনের বিধিনিষেধ। সেটি শেষে দুদিন বিরতির পর গত ১৪ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে আট দিনের কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয়।

সেই মেয়াদ শেষ হয় বুধবার (২১ এপ্রিল) মধ্যরাতে। তবে করোনা পরিস্থিতি ঠিক না হওয়ায় বিধিনিষেধের মেয়াদ ২৮ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত বাড়ানো হয়। পরে সেটি বাড়ানো হয় ৫ মে পর্যন্ত। এরপর গেল ৩ মে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে আবারও বিধিনিষেদের মেয়াদ বাড়িয়ে আগামী ১৬ মে পর্যন্ত বহাল রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সবশেষ বিধিনিষেধের মেয়াদ বাড়িয়ে দেয়া প্রজ্ঞাপনে ছয়টি অতিরিক্ত নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এসব নির্দেশনার মধ্যে রয়েছে- সরকারি-বেসরকারি চাকরিজীবীরা ঈদের ছুটিতে আবশ্যিকভাবে নিজ নিজ কর্মস্থলে (অধিক্ষেত্রে) অবস্থান করবেন, সব দোকানপাট ও শপিংমলে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে প্রতিপালন নিশ্চিত করতে হবে, মাস্ক ব্যবহার শতভাগ নিশ্চিত করতে হবে, জনসমাগম হয় এ ধরনের সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান বন্ধ রাখতে হবে।

         ফ্রি কুইজে অংশগ্রহণ করে জিতে নিন ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত পুরস্কার

দেশে করোনার সবশেষ পরিস্থিতি

১২ মে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৪০ জন মারা গেছেন। তাদের মধ্যে ২৭ জন পুরুষ ও ১৩ জন নারী। নমুনা পরীক্ষায় নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে এক হাজার ১৪০ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো সাত লাখ ৭৭ হাজার ৩৯৭ জন।

Tagged