http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/05/Finally-permission-to-operate-the-ferry.jpg

অবশেষে ফেরি চলাচলের অনুমতি

সারা বাংলা

অবশেষে পাটুরিয়া-দোউলতদিয়ে রুটে ফেরি চলাচলের অনুমতি দিয়েছে বিআইডব্লিউটিসি। সোমবার (১০ মে) গণমাধ্যমকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন সংস্থাটির মহাব্যবস্থাপক আশিকুজ্জামান।

এর আগে রোববার (০৯ মে) বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ ১৬টি ফেরি দিয়ে রাতভর দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে যানবাহন পারাপার করে। কিন্তু সোমবার ভোর থেকে সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক আবারও বন্ধ করা হয় ফেরি চলাচল। তবে দিনেরবেলায় শুধু জরুরি পরিসেবার জন্য দুটি ফেরিতে যানবাহন পারাপার চালু রাখা হয়েছে।

এদিকে শুক্র ও শনিবার দৌলতদিয়ায় ঈদে ঘরমুখো মানুষের ঢল নামে। যার ফলে রবি ও সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত যানবাহনের চাপও কম ছিল। তবে ঘরমুখো মানুষকে ঠেকাতে জেলা পুলিশ কঠোর অবস্থান গ্রহণ করে।

বিআইডব্লিউটিসি কর্মকর্তা ফিরোজ শেখ বলেন, দিনে ফেরি বন্ধ। শুধু জরুরি পরিসেবায় বহরের ১৬টি ফেরির মধ্যে দুটি দিয়ে কিছু যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। তাও অ্যাম্বুলেন্স ও রোগী ছাড়া ফেরিতে উঠতে পারবে না।

আরও পড়ুন: ফেরিতে উঠতে গিয়ে পদ্মায় ডুবলো মাইক্রোবাস
মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাটে ফেরিতে উঠতে গিয়ে পন্টুন থেকে একটি যাত্রী বোঝাই মাইক্রোবাস নদীতে পড়ে যায়। মাইক্রোবাসটি পদ্মায় ডুবে গেলেও সব যাত্রীকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। রোববার (৯ মে) বিকালে ৫ নম্বর ফেরি ঘাটে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

জীবিত উদ্ধার হওয়া যাত্রীরা হলেন মাইক্রোবাসচালক রিয়াজ হোসেন (৩২), শাহজাহান মণ্ডল (২৫), কামরুজ্জামান (৬০) ও মোহাম্মদ আলিফ (১০)। পাটুরিয়া ফায়ার সার্ভিসের ইন্সপেক্টর আশরাফুল ইসলাম বলেন, ঢাকা থেকে যাত্রী নিয়ে মাগুরা যাচ্ছিল মাইক্রোবাসটি।

                ফ্রি কুইজে অংশগ্রহণ করে জিতে নিন ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত পুরস্কার

পাটুরিয়া ৫ নম্বর ঘাটের পন্টুনে তারা ফেরির অপেক্ষায় ছিলেন। পন্টুন থেকে মাইক্রোবাসটি পেছনের দিকে নিতে গেলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নদীতে পড়ে ডুবে যায়। তবে স্থানীয়দের সহযোগিতায় ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা তাৎক্ষণিক ভাবে আরোহীদের জীবিত উদ্ধার করতে সক্ষম হন। পরে ডুবে যাওয়া মাইক্রোবাসটিও উদ্ধার করা হয়।

Tagged