মাস্ক পরতে বলায় চিকিৎসককে হুমকি ছাত্রলীগ নেতার!

সারা বাংলা

বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  মাস্ক পরতে বলায় এক চিকিৎসককে লাঞ্ছিতের ও প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছেন এক ছাত্রলীগ নেতা। এ ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার ছাত্রলীগ নেতার নাম আবুল কালাম খান। তিনি উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।

সোমবার (২৬ এপ্রিল) বিকেলে ছাত্রলীগ নেতা আবুল কালাম কে গ্রেফতার করা হয়। সরকারি কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগ এনে বাকেরগঞ্জ থানায় মামলা করেন ঘটনার শিকার বাকেরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. মনিরুজ্জামান খান।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, শনিবার (২৪ এপ্রিল) বিকেল ৩টার দিকে  ডা. মনিরুজ্জামান খান হাসপাতালে দায়িত্বপালন কালে ছাত্রলীগ নেতা আবুল কালাম মাস্ক না পরে জরুরি বিভাগে প্রবেশ করেন। এ সময় আবুল কালামকে তিনি মাস্ক পরে আসতে অনুরোধ করেন। তবে তিনি সে কথায় ভ্রুক্ষেপ না করে তার শিশু সন্তান ডায়রিয়ায় আক্রান্ত দাবি করে তাকে ক্যানোলা পরাতে পীড়াপীড়ি করতে থাকেন। এসময় তিনি ছাত্রলীগ নেতা আবুল কালামকে বলেন, আগে মাস্ক পরে আসেন। এরপর আপনার সব কথা শোনা হবে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন আবুল কালাম। তাকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেন এবং ধাক্কা দেন। এতে তিনি পড়ে গিয়ে হাঁটুতে ব্যথা পান। এসময় চিকিৎসক পুলিশকে ফোন দেয়ার চেষ্টা করলে তাকে বাধা দেন আবুল কালাম। একপর্যায়ে তার ফোনটি কেড়ে নেয়ার চেষ্টাও করেন। পরে হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীরা এগিয়ে এলে তাদের সামনেই প্রাণনাশের হুমকি দেন ছাত্রলীগ নেতা কালাম। পরে পুলিশ আসলে তিনি পালিয়ে যান।

চিকিৎসক ডা. মনিরুজ্জামান খান বলেন, এ ঘটনার পর বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়। পরে তাদের নির্দেশনা পেয়ে তিনি বিকেলে থানায় মামলা করেন।