http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/04/পরকীয়া-প্রেমিকের-সঙ্গে-মিলে-স্বামীকে-হত্যার-পরিকল্পনা-স্যালাইনের-সঙ্গে-বিষ.jpg

পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে মিলে স্বামীকে হত্যার পরিকল্পনা, স্যালাইনের সঙ্গে বিষ!

সারা বাংলা

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে মিলে স্বামীকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে কাকলী খাতুন নামে এক গৃহবধূকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দিবাগত রাত ২টার দিকে অভিযান চালিয়ে দামুড়হুদা উপজেলার সাড়াবাড়িয়া গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে রাত সাড়ে ১২টার দিকে মাসুদ রানার মা মমতাজ খাতুন বাদী হয়ে দর্শনা থানায় একটি হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ জানায়, জীবননগর উপজেলার হরিহরনগর গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের মেয়ে কাকলী খাতুনের সাথে ৯ মাস আগে দামুড়হুদা উপজেলার সাড়াবাড়িয়া গ্রামের আব্দুল কাদের মন্ডলের ছেলে মাসুদের বিয়ে হয়। বিয়ের পরেই সাড়াবাড়িয়া গ্রামের স্কুলপাড়ার উসমান মোল্লার ছেলে মুকুলের সঙ্গে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে কাকলী। পরে কাকলী ও মুকুল মিলে মাসুদকে হত্যা করার পরিকল্পনা করে।

গতকাল শুক্রবার দুপুরে মাসুদ কৃষিকাজ শেষে মাঠ থেকে বাড়ি ফিরে কাকলী খাতুনের কাছে পানি চায়। পরে স্যালাইনের সাথে ঘুমের ওষুধ ও বিষ মিশিয়ে স্বামী মাসুদকে হত্যার চেষ্টা করে কাকলী খাতুন। মুমূর্ষু অবস্থায় স্বামী মাসুদ রানাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাহবুবুর রহমান জানান, মাসুদের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে সাত দিনের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

দর্শনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাব্বুর রহমান জানান, রাতে মাসুদ রানার মা বাদী হয়ে কাকলী ও মুকুলকে আসামি করে একটি হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করেন। পরে অভিযান চালিয়ে শুক্রবার দিবাগত রাতে কাকলীকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বামীকে হত্যাচেষ্টার কথা স্বীকার করেছে কাকুলী খাতুন।

তিনি বলেন, আজ বেলা ১১টায় কাকলী খাতুনকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। অভিযুক্ত পরিকল্পনাকারী প্রেমিক মুকুলকে ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে।