http://igeneration.com.bd/wp-content/uploads/2021/04/প্রথম-স্বামীকে-ডিভোর্স-দ্বিতীয়-স্বামীর-বাড়িতে-অনশন.jpg

প্রথম স্বামীকে ডিভোর্স, দ্বিতীয় স্বামীর বাড়িতে অনশন

সারা বাংলা

নারায়ণগঞ্জে স্ত্রীর অধিকার পেতে প্রথম স্বামীকে ডিভোর্স দিয়ে রবিউল ইসলাম লাভলু নামে এক যুবকের বাড়িতে অনশনে বসেছেন ২৪ বছর বয়সী তরুণী। তবে এর আগেই পালিয়ে যান রবিউল।

শনিবার সদর উপজেলার ফতুল্লার দাপা নূর মসজিদের কাছে রবিউলের বাড়িতে দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত অবস্থান নেন ভুক্তভোগী তরুণী। রবিউল একই এলাকার আব্দুল খায়েরের ছেলে।

এদিকে, মেয়েকে বুঝিয়ে নিজের বাবার বাসায় যাওয়ার অনুরোধ করেন ফতুল্লা থানার পুলিশ সদস্যরা। কিন্তু ব্যর্থ হয়ে তারা চলে যান।

ভুক্তভোগী তরুণী জানান, রবিউলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কের কারণে প্রথম স্বামীকে ডিভোর্স দেন ওই তরুণী। এরপর ২০১৯ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর ইসলামি শরিয়ত মোতাবেক কাজির মাধ্যমে রবিউলকে বিয়ে করেন তিনি। বিয়ের পর বেশ কিছুদিন তারা ফতুল্লার ভূইঘড় এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন।

বিয়ের চার মাস পর স্ত্রীকে না বলে বাসা থেকে চলে আসেন রবিউল। পরবর্তীতে রবিউলের বাসায় এলে বাড়ির লোকজন তার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে তাড়িয়ে দেন। এ নিয়ে গত দুই বছরে পুলিশ, সামাজিক বিচার-সালিশ হলেও তারা তাকে বাসায় তুলছে না।

একপর্যায়ে স্বামী ও শ্বশুরের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেন তিনি। পরে স্ত্রী হিসেবে মেনে নেয়ার আশ্বাস দিলে স্বামী ও শ্বশুরকে জামিনে বের করে আনেন। কারাগার থেকে বেরিয়ে এসে তাকে মেনে নেয়া তো দূরের কথা উল্টো মিথ্যে মামলা দিয়ে ফাঁসানোর হুমকি দেন স্বামী-শ্বশুর।

তাই কোনো উপায় না পেয়ে স্ত্রীর অধিকার আদায়ে স্বামীর বাড়িতে রয়েছেন তিনি। মীমাংসা না হওয়া পর্যন্ত এখানেই থাকবেন।

Tagged